জেনিথ লাইফের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ নেই কর্তৃপক্ষে: আইডিআরএ চেয়ারম্যান

bankbima.xyz

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি লাইফ বীমা কোম্পানি জেনিথ ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষে কোন অভিযোগ নেই বলে জানিয়েছেন বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)’র চেয়ারম্যান ড. এম মোশাররফ হোসেন।

-বিজ্ঞাপন-

 

শনিবার (১৩ নভেম্বর) কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত জেনিথ ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের উন্নয়ন সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান। কোম্পানিটির চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা ফরিদুন্নাহার লাইলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটিতে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখছিলেন।

 

bankbima.xyz

 

আইডিআরএ চেয়ারম্যান ড. এম মোশাররফ বলেন, চতুর্থ প্রজন্মের বীমা কোম্পানি হিসেবে জেনিথ ইসলামী লাইফ আজ ব্যবসা সফল কর্মকর্তাদের নিয়ে কক্সবাজারে উন্নয়ন সম্মেলন আয়োজন করেছে এবং এতো লোকের সমাগম হয়েছে যা আমি ভাবতে পারিনি।

 

জেনিথ ইসলামী লাইফের বীমা দাবি পরিশোধের চিত্র দেখে আইডিআরএ চেয়ারম্যান বলেন, এটা এক্সিলেন্ট। বীমা কর্মীদের উৎসাহ দিতে গিয়ে তিনি বলেন, আমি তো চাকরি করি, কিন্তু আপনারা তো করেন ব্যবসা। তিনি বীমা কর্মীদের মধ্যে একতা গড়ে তোলার আহবান জানান এবং ১:৫ ভিত্তিতে পিরামিড আকারে সংগঠন করার পরামর্শ দেন।

 

বীমা কোম্পানিটির মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে নিজের সম্পর্কের বিষয়ে ড. এম মোশাররফ বলেন, তিনি আমার এক্স-কলিগ। দীর্ঘদিন আমরা এক সাথে কাজ করেছি। তার সাথে আমার সম্পর্ক খুবই আন্তরিক।

 

bankbima.xyz

 

কোম্পানিটির বোর্ড সভার প্রশংসা করে আইডিআরএ -এর চেয়ারম্যান বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে জেনিথ ইসলামী লাইফ এগিয়ে যাচ্ছে। নবায়ন প্রিমিয়াম জোরদার করতে প্রথম বর্ষের এজেন্ট কমিশন থেকে ১০ শতাংশ কেটে রেখে পরবর্তীতে দেয়া হচ্ছে।

 

এতে করে কর্মীরা নবায়ন সংগ্রহে আরো আন্তরিক হবে বলে মন্তব্য করেন আইডিআরএ চেয়ারম্যান। জেনিথ ইসলামী লাইফের অনুষ্ঠানে ড. এম মোশাররফ হোসেন বীমা কোম্পানিটির ব্যবসা সফল কর্মকর্তাদের মাঝে চেয়ারম্যান অ্যাওয়ার্ড বিতরণ করেন এবং গ্রাহকদের মাঝে মৃত্যুদাবি ও ম্যাচুরিটির বীমা দাবি হস্তান্তর করেন।

 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইডিআরএ’র পরিচালক (উপ-সচিব) মো. শাহ আলম, জেনিথ ইসলামী লাইফের ভাইস-চেয়ারম্যান এ টি এম এনায়েত উল্লাহ, পরিচালক আবদুল জলিল, নিরপেক্ষ পরিচালক কাজী মো. মোরতুজা আলী, মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম নুরুজ্জামান।